ইংরেজি

Claim Assistance
Get In Touch
17 Benefits of Medical Insurance
ফেব্রুয়ারি 23, 2022

হেলথ ইনস্যুরেন্সের সুবিধা

বর্তমান সময়ে হেলথ ইনস্যুরেন্স এমন একটি প্রয়োজন যা উপেক্ষা করা যাবে না. এর অফার করা বিভিন্ন সুবিধাগুলি বিবেচনা করলে বোঝা যায় যে, এর মধ্যে কোনও আর্থিক সুরক্ষা নেই তা হতেই পারে না. কিন্তু এটি কেন এত গুরুত্বপূর্ণ তা বোঝার আগে , আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে: হেলথ ইনস্যুরেন্স কী ? হেলথ ইনস্যুরেন্স হল আপনার মেডিকেল খরচ বহন করার জন্য ইনস্যুরেন্স কোম্পানি এবং আপনার অর্থাৎ পলিসিহোল্ডারের মধ্যে একটি চুক্তি. ভারতে, গ্লোবাল ইনস্যুরেন্স সেক্টরের তুলনায় হেলথ ইনস্যুরেন্সের পরিস্থিতি ভিন্ন. 2021 সালের অক্টোবরে নীতি আয়োগ দ্বারা প্রকাশিত 'হেলথ ইনস্যুরেন্স ফর ইন্ডিয়া'স মিসিং মিডল' রিপোর্ট অনুসারে, জনসংখ্যার 30% বা 40 কোটি ব্যক্তি স্বাস্থ্যের জন্য যে কোনও আর্থিক সুরক্ষা থেকে বঞ্চিত[1]. মহামারীর সাথে লড়াই করা এই বিশ্বে, স্বাস্থ্যের উপর খুব বেশি গুরুত্ব দেওয়ার কারণে ইনস্যুরেন্সের হার বেড়েছে. এমনকি ইকোনোমিক টাইমসও বলেছে যে হেলথ ইনস্যুরেন্স এর চাহিদা বর্তমান মহামারীর সেকেন্ড ওয়েভের পর অন্তত 30% বৃদ্ধি পেয়েছে[2]. আরও আশ্চর্যজনক বিষয় হল, আরও বেশি সংখ্যক তরুণ পেশাদাররা হেলথ ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলি উপলব্ধি করছেন.

হেলথ ইনস্যুরেন্সের বেনিফিটগুলি কী কী?

আপনি পরবর্তীতে কোন পলিসিটি নেবেন তার সিদ্ধান্ত নিতে আপনাকে সাহায্য করার জন্য হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির অফার করা সুবিধাগুলির একটি সম্পূর্ণ তালিকা এই আর্টিকেলে উল্লেখ করা হয়েছে.  
  1. কম্প্রিহেন্সিভ মেডিকেল কভারেজ

হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি একটি কম্প্রিহেন্সিভ মেডিকেল ইনস্যুরেন্স কভার অফার করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যা আপনার কাছে থাকলে আপনাকে আর অত্যধিক চিকিৎসা খরচ ম্যানেজ করার ব্যাপারে চিন্তা করতে হবে না. আর্থিক বিষয় সম্বন্ধে চিন্তা না করেই অপ্রত্যাশিত হাসপাতালে ভর্তি হওয়া বা এমনকী একটি পরিকল্পিত পদ্ধতি ম্যানেজ করার সম্ভবত সেরা সমাধান.  
  1. হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর চিকিৎসা: হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর চিকিৎসা বলতে সেই চিকিৎসাকে বোঝায় যেখানে রোগীকে চিকিৎসা নেওয়ার জন্য অন্ততপক্ষে 24 ঘন্টা হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়. সমস্ত ইনস্যুরেন্স পলিসি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর চিকিৎসা খরচ একটি পলিসির অধীনে কভার করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে.
  2. হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগের এবং পরের খরচের কভার: হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার চিকিৎসার খরচের পাশাপাশি মেডিকেল ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলির মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগের এবং পরের খরচও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যার মধ্যে ডায়াগনসিস চার্জ এবং ডাক্তার কর্তৃক নির্ধারিত পরীক্ষার খরচ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে. অন্যদিকে, হাসপাতালে ভর্তির পরের কভার প্রকৃত চিকিৎসার পরে যে খরচের প্রয়োজন হতে পারে তার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করে. কখনও কখনও প্রয়োজনীয় ওষুধের খরচ অনেক বেশি হতে পারে এবং এই পরিস্থিতিতে, একটি হাসপাতালে ভর্তির পরের কভার সাহায্য করতে পারে. সাধারণত, হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসিগুলি চিকিৎসা-পূর্ব খরচের জন্য 30-দিনের কভার প্রদান করে, অপরদিকে চিকিৎসার পরবর্তী খরচের জন্য 60-দিনের কভার প্রদান করে.
  3. ডে-কেয়ার খরচ: ডে-কেয়ার পদ্ধতি হল এমন সার্জারি যার জন্য আগে থেকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার প্রয়োজন হয় কিন্তু বর্তমানে এটি কয়েক ঘন্টার মধ্যে সম্পূর্ণ করা যেতে পারে. কার্যকর ওষুধ এবং মানসম্পন্ন চিকিৎসা পদ্ধতির পাশাপাশি চিকিৎসা প্রযুক্তির উন্নতি এই কাজটি সম্ভব করে তুলেছে. অন্যভাবে বলতে গেলে, এটি অল্প সময়ের জন্য হাসপাতালে ভর্তি হিসাবেও পরিচিত. সাধারণত, ডে-কেয়ার পদ্ধতির জন্য 2 ঘন্টার বেশি কিন্তু 24 ঘন্টার কম সময়ের প্রয়োজন হয়. হেলথ ইনস্যুরেন্সের অধীনে ডে-কেয়ার খরচের কভারেজ ছোটখাটো চিকিৎসাগুলো ইনসিওর করে, যা হয়ত অন্যথায় ব্যয়বহুল হতে পারে.
  4. গুরুতর অসুস্থতার জন্য কভারেজ: ক্রিটিকাল ইলনেস কভারের আওতায় কভার করা রোগগুলোর মধ্যে রয়েছে মারাত্মক অসুস্থতা এবং দীর্ঘমেয়াদী রোগ যেমন হার্টের সমস্যা, রেনাল ফেলিওর, বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সার. ক্ষতিপূরণ পে করার ক্ষেত্রে ক্রিটিকাল ইলনেস প্ল্যান ভিন্নভাবে কাজ করে. এক্ষেত্রে, নির্দিষ্ট রোগ নির্ণয় করা হলে ইনস্যুরেন্স কোম্পানি সম্পূর্ণ সাম অ্যাসিওর্ড একটি লাম্পসাম হিসাবে পে করে. এই ধরনের লাম্পসাম পে-আউট চিকিৎসার পাশাপাশি অন্যান্য খরচের জন্যও আর্থিক সহায়তা প্রদান করে. এর একটি স্বল্প-পরিচিত সুবিধা হল ক্রিটিকাল ইলনেস ইনস্যুরেন্স  অঙ্গ দানের জন্য কভার.
  5. রুম ভাড়া এবং আইসিইউ চার্জ: একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির কম্প্রিহেন্সিভ কভারেজের মধ্যে রুম ভাড়া এবং আইসিইউ চার্জের জন্য কভার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে. রুম ভাড়া হল এমন একটি খরচ যা ইনসিওর্ড ব্যক্তি হাসপাতালে থাকার জন্য হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সময় রুম ভাড়ার বাবদ উদ্ভুত হয়. অসুস্থতার উপর ভিত্তি করে একজন রোগী একটি নিয়মিত ওয়ার্ড বা আইসিইউ-তে অথবা কোনও আইসিসিইউ-তে ভর্তি হতে পারে. সাধারণত, ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের দ্বারা কভার করা রুম ভাড়ার পরিমাণের উপর ক্ষেত্রে একটি সীমাবদ্ধতা রয়েছে. এই নির্দিষ্ট পরিমাণের অতিরিক্ত রুম ভাড়া পলিসিহোল্ডারকেই প্রদান করতে হবে.
*নিয়ম এবং শর্তাবলী প্রযোজ্য  
  1. নেটওয়ার্ক হাসপাতালে ক্যাশলেস চিকিৎসা

চিকিৎসা সংক্রান্ত অনাকাঙ্ক্ষিত জরুরি অবস্থার ক্ষেত্রে আর্থিক নিরাপত্তা পাওয়ার জন্য হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান কেনা হয়ে থাকে. এই সময় মেডিকেল বিল পে করা এবং সেইসাথে আর্থিকভাবে তা রিকভার করা একটি মারাত্মক আঘাত হতে পারে. তাই এমন একটি পলিসি বেছে নিন যা ক্যাশলেস ক্লেমের সুবিধা প্রদান করে. প্ল্যানের মাধ্যমে ক্যাশলেস হেলথ ইনস্যুরেন্স  , ইনস্যুরেন্স কোম্পানি সরাসরি হাসপাতালে চিকিৎসার খরচ পে করে বলে আপনাকে উল্লেখযোগ্য কোনও ক্যাশ খরচ করতে হয় না.
  1. বাড়িতে চিকিৎসার জন্য ডোমিসিলিয়ারি কভার

হেলথ ইনস্যুরেন্সের বেনিফিটের মধ্যে ডোমিসিলিয়ারি কভার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যার কারণে পলিসিহোল্ডার বাড়িতে চিকিৎসা পেতে পারেন. চিকিৎসা সংক্রান্ত সুযোগের অভাব বা রোগীর চলাফেরার সীমাবদ্ধতার কারণে বাড়িতে চিকিৎসা নেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে. বয়স্ক ব্যক্তিরা হেলথ ইনস্যুরেন্সের এই সুবিধা থেকে উপকৃত হতে পারেন. হেলথ ইনস্যুরেন্সের এই ফিচারের প্রাথমিক সুবিধাটি হল হাসপাতালে ভর্তি হতে বা রোগীর নড়াচড়া বা চলাফেরায় সমস্যা হলেও অসুস্থ ব্যক্তিদের জন্য চিকিৎসা সুবিধা পাওয়া.*
  1. রোগীর যাতায়াতের জন্য অ্যাম্বুলেন্স চার্জ

হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি অ্যাম্বুলেন্স খরচের অতিরিক্ত সুবিধাও অফার করে যা পলিসির অধীনে কভার করা হয়. এক্ষেত্রে, রোগীর যাতায়াতের জন্য অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার সংক্রান্ত যে কোনও চার্জ হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের অধীনে কভার করা হয়. যেহেতু এই চার্জগুলি অনেক বেশি হয়, বিশেষ করে মেট্রো শহরে, তাই এই ধরনের খরচ কভার করার জন্য একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির নিরাপত্তা-বেষ্টনী থাকা সবচেয়ে ভালো.*
  1. প্রি-এক্সিস্টিং রোগের জন্য কভারেজ

হেলথ ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলির মধ্যে রয়েছে আগে থেকে বিদ্যমান রোগের জন্য কভারেজ. পলিসি কেনার সময় একজন ব্যক্তির হৃদরোগ, ক্যান্সার এবং অ্যাজমার মতো দীর্ঘস্থায়ী কিছু রোগ আগে থেকেই বিদ্যমান থাকতে পারে. এটি বিশেষ করে বয়স্ক ব্যক্তিদের হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান কেনার ক্ষেত্রে দেখা যায়. পলিসি কেনার সময় এই ধরনের যে অসুস্থতা আগে থেকেই থাকে, সেগুলো আগে থেকে বিদ্যমান অসুস্থতা হিসাবে পরিচিত. আপনি একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান কেনার সময় সেটির কভারেজে আগে থেকে বিদ্যমান রোগ এবং নির্দিষ্ট রোগের ভবিষ্যতের চিকিৎসা অন্তর্ভুক্ত থাকে. সুতরাং, এই চিকিৎসাগুলির জন্য আপনার পকেট থেকে পরিশোধ করা নিয়ে আপনাকে আর চিন্তা করতে হবে না. তবে, এটি মনে রাখতে হবে যে ইনস্যুরেন্স কোম্পানি সাধারণত একটি ওয়েটিং পিরিয়ড ধার্য করে থাকে, যে পিরিয়ড শেষ হওয়ার আগে এই ধরনের অসুস্থতা আপনার পলিসিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয় না এবং কেনার আগে আপনাকে অবশ্যই এটি দেখে নিতে হবে.*
  1. রিনিউয়ালের সময় কিউমুলেটিভ বোনাস

প্রতিটি পলিসির মেয়াদেই পলিসিহোল্ডার কর্তৃক ক্লেম করা হয় না. এই পরিস্থিতিতে, রিনিউ করার সময় ইনস্যুরেন্স কোম্পানি আপনার পলিসির সাম অ্যাসিওর্ডের পরিমাণটি বাড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে কোনও ক্লেম না করার জন্য আপনাকে বেনিফিটটি প্রদান করে থাকে. সাম অ্যাসিওর্ডের এই বৃদ্ধি কিউমুলেটিভ বোনাস হিসাবে পরিচিত এবং এর পরিমাণটি সাম অ্যাসিওর্ডের 10% থেকে 100% পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের ক্ষেত্রে এটি কম পরিচিত একটি সুবিধা.*
  1. লাইফটাইম রিনিউ করার সুবিধা

মেডিকেল ইনস্যুরেন্স লাইফটাইম রিনিউ করার সুবিধাটি পলিসিহোল্ডারকে বয়সের কোনও সীমাবদ্ধতা ছাড়াই তাদের হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান রিনিউ করতে দেয়. আপনি যদি একটি ফ্যামিলি ফ্লোটার প্ল্যানের কভার নিয়ে থাকেন এবং আপনার পরিবারের সবচেয়ে বয়স্ক সদস্য যদি বয়সের সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছে যায় তখন এটি আপনার কাজে আসবে. সাধারণ পরিস্থিতিতে, কভারেজ শেষ হয়ে যাবে কিন্তু হেলথ ইনস্যুরেন্সের লাইফটাইম রিনিউ করার সুবিধা থাকলে আপনি সারাজীবনের জন্য রিনিউ করার সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন. এছাড়াও, প্রবীণ নাগরিকদের জন্য, লাইফটাইম রিনিউ করার সুবিধা তাদের ইনস্যুরেন্স কভারের ক্রমাগত রিনিউয়ালের সাথে চিকিৎসা সংক্রান্ত ইমার্জেন্সি অবস্থার যে কোনও ফিন্যান্সিয়াল চাপ কমিয়ে দেয়.*
  1. কনভালেসেন্স সম্পর্কিত সুবিধা

কিছু কিছু অসুস্থতার ক্ষেত্রে সুস্থ হতে হাসপাতালে ভর্তি থাকার সময়ের চেয়েও বেশি সময় লাগে. এটি চিকিৎসার জটিল প্রকৃতি বা গুরুতর অসুস্থতার কারণে হতে পারে. আর তখনই কনভালেসেন্স বেনিফিট কাজে আসে. এই ধরনের পরিস্থিতিতে, রিকভারি খরচের জন্য ইনস্যুরার একটি লাম্পসাম অ্যামাউন্ট পে করেন এবং এই ধরনের পিরিয়ডের মেয়াদ সাত বা দশ দিনের মধ্যে হতে পারে. এমনকি এটি রিকভারির সময়ে আয় সংক্রান্ত ক্ষতির ক্ষতিপূরণ করতেও সাহায্য করতে পারে.*
  1. বিকল্প পদ্ধতিতে চিকিৎসা গ্রহণের বিকল্প (আয়ুষ)

হেলথ ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলির মধ্যে বিকল্প চিকিৎসার জন্য কভারেজ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে যেখানে আয়ুর্বেদ, ইয়োগা, ইউনানি, সিদ্ধ এবং হোমিওপ্যাথি চিকিৎসাগুলি কভার করা হয়. এই চিকিৎসাগুলি মূলধারার চিকিৎসার অংশ নয়. হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি পলিসিহোল্ডারকে বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসার জন্য অতিরিক্ত কভারেজ প্রদান করে.
  1. ডেইলি হসপিটাল ক্যাশ অ্যালাওয়েন্স

হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন সময় আপনি কাজ করতে পারবেন না, যার ফলে আয়ের ক্ষেত্রে ক্ষতি হয়. এই পরিস্থিতিতে, হাসপাতালের বিলের বেড়ে যাওয়ার কারণে নগদ সঙ্কট দেখা দিতে পারে. হসপিটাল ক্যাশ ডেইলি অ্যালাওয়েন্স ব্যবহার করে আপনি এই ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারেন. ইনস্যুরেন্স কোম্পানি হাসপাতালে ভর্তি থাকাকালীন প্রতিদিনের জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অ্যামাউন্ট প্রদান করে, যা আয়ের ক্ষতির ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ প্রদান করে.*
  1. মেডিকেল চেক-আপের সুবিধা

যেহেতু অসুস্থতা অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে আসে তাই একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান মেডিক্যাল চেক-আপের সুবিধা প্রদান করার মাধ্যমে সহায়তা করে. সাধারণত, এই সুবিধাটি বার্ষিক ভিত্তিতে পাওয়া যায় এবং এটি ব্যবহার করার মাধ্যমে আপনি আপনার স্বাস্থ্যগত অবস্থা মূল্যায়ন করতে পারেন এবং প্রাথমিক পর্যায়েই যে কোনও চিকিৎসা নিতে পারেন. আপনার হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের উপর ভিত্তি করে ইনস্যুরেন্স কোম্পানি মেডিকেল চেক-আপের খরচ বহন করবে. অপরদিকে, কিছু কিছু ক্ষেত্রে, এই খরচগুলি ইনস্যুরার রিইম্বার্সও করে থাকে.*
  1. বেরিয়াট্রিক চিকিৎসার জন্য কভারেজ

সব ইনস্যুরেন্স কোম্পানী বেরিয়াট্রিক ট্রিটমেন্টের জন্য কভারেজ প্রদান করে না, খুব সামান্য কয়েকটি সংস্থা এই সুবিধা দেয় (এর মধ্যে বাজাজ অ্য়ালিয়ান্স জেনারেল ইনস্যুরেন্স কোম্পানী অন্তর্ভুক্ত). বেরিয়াট্রিক সার্জারি হল স্থূলত্ব কমানোর জন্য একটি মেডিকেল পদ্ধতি, এটি তখন গ্রহণ করা যেতে পারে যখন ডায়েটিং, রুটিন মেনে করা প্রচুর ব্যায়ামের মতো ওজন কমানোর প্রক্রিয়াগুলি অনুসরণ করার পরেও কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পাওয়া না.*
  1. সাম ইনসিওর্ড রিস্টোরেশনের সুবিধা

রিস্টোরেশন বেনিফিট হল হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের একটি ফিচার যা ক্লেমের যে কোনও ব্যবহৃত অ্যামাউন্ট তার মূল সাম অ্যাসিওর্ডে রিস্টোর করে. এটি সাধারণত দেখা যায় ফ্যামিলি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের ক্ষেত্রে, এটি একই বেনিফিশিয়ারি বা ভিন্ন ভিন্ন বেনিফিশিয়ারির জন্য রেকারিং মেডিকেল খরচ কভার করতে সাহায্য করে. চিকিৎসার খরচ বেড়ে যাওয়ার কারণে সাম ইনসিওর্ড শেষ হওয়ার অর্থ হল আপনাকে চিকিৎসার জন্য নিজের পকেট থেকে পে করতে হবে. কিন্তু আপনার কাছে রিলোড করার ফিচার থাকার ফলে এই সাম অ্যাসিওর্ড পুনরায় মূল অ্যামাউন্টে রিস্টোর করা যাবে.* পলিসির কভারেজ শেষ হয়ে যাওয়া - সাম অ্যাসিওর্ডের সম্পূর্ণ শেষ হয়ে যাওয়া বা সাম অ্যাসিওর্ডের আংশিক সমাপ্তির উপর ভিত্তি করে রিস্টোরেশনের সুবিধাটি দুই ধরনের হয়. সম্পূর্ণ শেষ হয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ সাম অ্যাসিওর্ড অবশ্যই শেষ হতে হবে; শুধুমাত্র তারপরই রিস্টোরেশনের সুবিধা পাওয়া যাবে. অপরদিকে, আংশিক শেষ হওয়ার ক্ষেত্রে শুধুমাত্র সাম অ্যাসিওর্ডের একটি অংশ শেষ হলেই এটি রিস্টোর করা যাবে. ইনস্যুরেন্স কোম্পানি কোন ধরনের রিস্টোরেশন সুবিধা অফার করে তা পলিসি কেনার সময় চেক করা অপরিহার্য.
  1. মাতৃত্বকালীন কভারেজ এবং নবজাতকের কভার

হেলথ ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলির মধ্যে গর্ভাবস্থা এবং সন্তান প্রসবের খরচের জন্য কভারেজ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে. মাতৃত্ব একটি নতুন এবং জাদুকরী ও অসাধারণ অভিজ্ঞতা হলেও এর কারণে চিকিৎসা সংক্রান্ত সমস্যাও দেখা দিতে পারে. এ ধরনের পরিস্থিতিতে, হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান একটি ফিন্যান্সিয়াল শিল্ড প্রদান করতে পারে, যা আপনাকে চিকিৎসার উপর ফোকাস করতে সাহায্য করে এবং খরচ সম্পর্কে চিন্তা মুক্ত রাখে. এছাড়াও, হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির ম্যাটারনিটি কভার 90 দিনের নবজাতকের জন্যও সুরক্ষা প্রদান করে. একটি বিষয় মনে রাখতে হবে - ম্যাটারনিটি কভারের ক্ষেত্রে শনাক্ত হওয়া প্রেগন্যান্সি আগে থেকে বিদ্যমান রোগ হিসাবে বিবেচনা করা হয় এবং তাই, এটি আগে থেকেই নিতে হবে.*
  1. অ্যাড-অন রাইডার

একটি মেডিকেল ইনস্যুরেন্স কভারের সুবিধাগুলির মধ্যে অ্যাড-অন রাইডার সহ আপনার ইনস্যুরেন্স কভার কাস্টমাইজ করার ক্ষমতাও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে. এই রাইডার হল একটি অপশনাল ফিচার যা আপনার হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির সুযোগ বাড়ানোর জন্য নির্বাচন করা যেতে পারে. এইভাবে, অতিরিক্ত কভারেজ নিশ্চিত করার জন্য যে কেউ তাদের ইনস্যুরেন্স পলিসি কাস্টমাইজ করতে পারেন.*
  1. কোভিড-19-এর কভারেজ

পলিসি ডকুমেন্টে উল্লেখ করা চিকিৎসাগুলির জন্য খরচ প্রদান করা ছাড়াও, হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি কোভিড-19 সম্পর্কিত কভারেজও প্রদান করে. 2020 সালের মার্চে ইনস্যুরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (আইআরডিএআই) একটি সার্কুলার জারি করেছিল যেখানে সমস্ত বিদ্যমান ইনস্যুরেন্স প্ল্যানে কোভিড-19 এর কভারেজ অন্তর্ভুক্ত করার এবং প্রতিটি কেসে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে[3]. সুতরাং, আপনি যদি ভাইরাসের বিরুদ্ধে কভারেজ নিতে চান তাহলে একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান প্রয়োজনীয় বেনিফিট প্রদান করবে.*
  1. ওয়েলনেস বেনিফিট

ওয়েলনেস বেনিফিটের ধারণাটি 'চিকিৎসার চেয়ে প্রতিরোধ ভালো' প্রবাদটিতে বিশ্বাস করে.’ হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি ফিন্যান্সিয়াল সাপোর্টের পাশাপাশি ওয়েলনেস বেনিফিটও দিয়ে থাকে. এই বেনিফিটটি প্রিমিয়াম রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে ছাড়, নির্দিষ্ট সংস্থাগুলির জন্য সদস্যপদের ক্ষেত্রে সুবিধা, বুস্টার এবং সাপ্লিমেন্টের জন্য ভাউচার, বিনামূল্যে ডায়াগনস্টিক চেক এবং হেলথ চেক-আপ, রিডিমযোগ্য ফার্মাসিউটিকাল ভাউচার এবং আরও অনেক কিছুর জন্য পাওয়া যেতে পারে. ওয়েলনেস বেনিফিট সহ প্ল্যান বেছে নিলে তা অনেক লাভজনক হয়, কারণ এটি আপনাকে অসুস্থতা থেকে দূরে থাকতে সহায়তা করে.*
  1. সেকশন 80ডি-এর অধীনে কর ছাড়

শুধুমাত্র ফিন্যান্সিয়াল কভারই নয়, হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি করের ক্ষেত্রেও ছাড় প্রদান করে. এই কর ছাড় কেটে নেওয়ার যোগ্য অ্যামাউন্টের আকারে পাওয়া যায়. প্রদত্ত যে কোনও প্রিমিয়াম আয়কর আইনের ধারা 80ডি-এর অধীনে ছাড়ের জন্য যোগ্য. বয়স গ্রুপের উপর ভিত্তি করে কেটে নেওয়ার ভ্যালু ভিন্ন ভিন্ন হয় এর সর্বোচ্চ পরিমাণ হল ₹50,000. কেটে নেওয়া যে পরিমাণ টাকা পাওয়া যেতে পারে তার সারাংশ নিচের টেবিলে দেখানো হয়েছে –  
পরিস্থিতি আপনার আয়ের রিটার্নের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ছাড় ধারা 80ডি-এর অধীনে মোট কেটে নেওয়া পরিমাণ
পলিসিহোল্ডার, তাদের স্বামী/স্ত্রী এবং তাদের নির্ভরশীল সন্তানের জন্য পিতামাতার জন্য, তারা নির্ভরশীল হোন বা না হোন
কোনও বেনিফিশিয়ারি সিনিয়র সিটিজেন নন ₹ 25,000 পর্যন্ত ₹ 25,000 পর্যন্ত ₹ 50,000
পলিসিহোল্ডার এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের বয়স 60 বছরের কম এবং পিতামাতার বয়স 60 বছরের বেশি ₹ 25,000 পর্যন্ত ₹ 50,000 পর্যন্ত ₹ 75,000
পলিসিহোল্ডার বা পরিবারের অন্য কোনও সদস্যের বয়স 60 বছরের বেশি এবং পিতামাতার বয়সও 60 বছরের বেশি ₹ 50,000 পর্যন্ত ₹ 50,000 পর্যন্ত ₹ 1,00,000
  পে করা যে কোনও প্রিমিয়ামের জন্য কেটে নেওয়া ছাড়াও, মেডিকেল ইনস্যুরেন্সের সুবিধাগুলির মধ্যে ₹5,000 পর্যন্ত প্রিভেন্টিভ হেলথ চেক-আপের জন্য কেটে নেওয়া অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যা উপরোক্ত অ্যামাউন্টের অধীনে একটি সাব-লিমিট. কর আইন অনুযায়ী করে সুবিধাগুলি পরিবর্তন হতে পারে. -এর অধীনে ট্যাক্স সেভিংস সম্পর্কে আরও পড়ুন সেকশন 80ডি-এর অধীনে চিকিৎসা খরচ . *নিয়ম এবং শর্তাবলী প্রযোজ্য  

কেন আপনার একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি প্রয়োজন

  • আপনার কষ্টার্জিত সেভিংস সুরক্ষিত রাখতে:
এছাড়াও, হেলথ ইনস্যুরেন্স আপনাকে আপনার কষ্টার্জিত সেভিংস সুরক্ষিত রাখতে সহায়তা করে. মনে করুন যে আপনি আপনার সঞ্চয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করেছেন এবং আপনার পরিবারে চিকিৎসা সংক্রান্ত ইমার্জেন্সি অবস্থায় সেই সমস্ত ইনভেস্টমেন্ট প্রত্যাহার করার প্রয়োজন হবে. একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি এ ধরনের পরিস্থিতির বিরুদ্ধে সুরক্ষা প্রদান করে যাতে আপনাকে আর চিকিৎসার জন্য আপনার ইনভেস্টমেন্ট প্রত্যাহার করতে না হয়.
  • কর্পোরেট ইনস্যুরেন্স কভার ছাড়াও অতিরিক্ত ফিন্যান্সিয়াল কভারেজ:
বর্তমান সময়ে হেলথ ইনস্যুরেন্স একটি প্রয়োজনীয় সিকিউরিটি কভার এবং অনেক কর্পোরেট অফার করা ক্ষতিপূরণের জন্য অতিরিক্ত পূর্ব শর্ত হিসাবে হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি প্রদান করে. এই অতিরিক্ত এমপ্লয়ি বেনিফিটটি কর্মচারীদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে. কিন্তু এই প্ল্যানগুলির সীমাবদ্ধতা হল, আপনি শুধুমাত্র সেই নিয়োগকর্তার সাথে যুক্ত থাকা পর্যন্তই এগুলি বৈধ থাকে. এর অর্থ হল আপনার চাকরি শেষ হওয়ার সাথে সাথে আপনার হেলথ ইনস্যুরেন্স কভারও শেষ হয়ে যাবে. এটি থাকলে, এক্ষেত্রে চাকরি শেষ হওয়ার পরেও পার্সোনাল মেডিকেল ইনস্যুরেন্স কভারেজ নিশ্চিত করে থাকে.
  • চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ বৃদ্ধির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য প্রয়োজনীয়
পরিশেষে, চিকিৎসা সংক্রান্ত খরচ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে, যার ফলে চিকিৎসার খরচও বেড়ে যাচ্ছে. বেড়ে যাওয়া খরচে পাশাপাশি নতুন এবং উন্নত প্রযুক্তির চিকিৎসাও এর একটি কারণ. চিকিৎসার খরচ এভাবে দ্রুত বৃদ্ধির কারণে এই ধরনের চিকিৎসা সংক্রান্ত জরুরি অবস্থার জন্য সেভিংস করা আসলেই খুব কঠিন হতে পারে. এই পরিস্থিতি এতটাই গুরুতর যে, চিকিৎসা খরচের কারণে উদ্ভূত লোনের কারণে প্রায় 7% মানুষ দারিদ্র্য সীমার নীচে পৌঁছে যাচ্ছে[4]. আপনার একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি থাকলে আপনি এই ধরনের দুর্ভাগ্যজনক পরিস্থিতিগুলি এড়াতে পারেন. চিকিৎসার খরচ ম্যানেজ করার জন্য হেলথ কভারগুলি আর্থিক সহায়তা পেতে সাহায্য করে.  

একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি কেনার সময় আপনাকে কোন বিষয়গুলির প্রতি খেয়াল রাখতে হবে?

হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসি কেনার সময় যে বিষয়গুলি মনে রাখতে হবে সেগুলি হল:
  • নেটওয়ার্ক হাসপাতালের কভারেজ
ক্যাশলেস সুবিধা পাওয়ার জন্য আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি যেন কোনও একটি নেটওয়ার্ক হাসপাতালে চিকিৎসা নেন. এই নেটওয়ার্ক হাসপাতাল সেই সমস্ত হাসপাতাল যেগুলোর সাথে ইনস্যুরেন্স কোম্পানির পার্টনারশিপ রয়েছে. আপনার হেলথ ইনস্যুরেন্স কোম্পানির আপনার চারপাশে এবং সারা দেশে নেটওয়ার্ক হাসপাতালের বিস্তৃত কভারেজ রয়েছে কিনা তা যাচাই করা জরুরি. এটি আপনাকে বাড়িতে এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণের সময় দেখা দেওয়া ইমার্জেন্সির সময় বড় ধরনের কোনও খরচ ছাড়াই মানসম্পন্ন চিকিৎসা পেতে সহায়তা করবে.
  • চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয়তার উপর ভিত্তি করে উপযুক্ত কভার নির্বাচন করা
এছাড়াও, সঠিক বেনিফিশিয়ারির জন্য সঠিক ধরনের হেলথ ইনস্যুরেন্স কভার কেনাটাও জরুরি. উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনি কোনও কর্পোরেট ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের আওতায় থাকেন তাহলে একটি ফ্যামিলি ফ্লোটার প্ল্যান প্রয়োজন যার মধ্যে পরিবারের বিভিন্ন সদস্যদের আওতাভুক্ত করা যাবে. এইভাবে, অসুস্থতার কারণে যদি আপনার চাকরির ক্ষেত্রে কোনও পরিবর্তন ঘটে তাহলেও আপনি কোনও আর্থিক ঝুঁকির সম্মুখীন হবেন না. এছাড়াও,আপনি যদি কোনও বয়স্ক ব্যক্তিকে কভার করতে চান, প্রবীণ নাগরিকদের জন্য হেলথ ইনস্যুরেন্স একটি যোগ্য ইনস্যুরেন্স কভার হতে পারে, বেশি বয়সে এন্ট্রি এবং চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রে এর গুরুত্ব অপরিসীম. যদি উপরে উল্লিখিত একটিও ইনস্যুরেন্স প্ল্যান উপযুক্ত না হয়, তাহলে আপনি একটি ইন্ডিভিজুয়াল কভার কিনতে পারেন যা শুধুমাত্র একজন সুবিধাভোগীকে (আপনাকে) সুরক্ষা প্রদান করবে.
  • বহির্ভূত
যদিও হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসিগুলি বিভিন্ন ধরনের রোগ এবং চিকিৎসা সংক্রান্ত আবশ্যিক খরচের জন্য কভারেজ অফার করে, তবে এমন কিছু অসুস্থতাও থাকতে পারে যেগুলো আপনার বেছে নেওয়া প্ল্যানের অধীনে কভার করা হবে না. সুতরাং, পলিসি কেনার আগে পলিসির শর্তাবলী পড়তে এবং বহির্ভূত বিষয়ে যে কোনও সন্দেহ থাকলে তা দূর করার পরামর্শ দেওয়া হয়.  

অনলাইনে কীভাবে হেলথ ইনস্যুরেন্স কভার কিনবেন?

এখন আপনি যেহেতু হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের সুবিধাগুলির বিস্তারিত তালিকা সম্পর্কে জানেন, তাই একটি প্ল্যান কীভাবে কিনবেন তা আপনার জানা উচিত. অনলাইনে হেলথ ইনস্যুরেন্স কেনা হল একটি সরল এবং ঝঞ্ঝাট-মুক্ত প্রক্রিয়া. ধাপ 1: এটি পছন্দের ইনস্যুরেন্স কোম্পানির ওয়েবসাইট ভিজিট করা এবং হেলথ ইনস্যুরেন্স বিভাগটি শনাক্ত করার মধ্য দিয়ে শুরু হয়. ধাপ 2: আপনাকে আপনার বয়স, লিঙ্গ, মোবাইল নম্বর ইত্যাদির মতো প্রয়োজনীয় পার্সোনাল তথ্য লিখতে হবে. ধাপ 3: এরপর, বিভিন্ন ধরনের হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যান থেকে একটি উপযুক্ত কভার বেছে নিন ধাপ 4: পলিসির সুবিধা বাড়ানোর জন্য অ্যাড-অন রাইডার যোগ করুন. ধাপ 5: একবার পলিসির ধরন, এর বিভিন্ন ফিচার এবং অতিরিক্ত রাইডার চূড়ান্ত করার পর আপনি ইনস্যুরেন্স কভারটি নিতে পেমেন্ট করতে পারেন. তবে, পেমেন্ট করার এই ধাপটির আগে, আপনার জন্য সেরা পলিসিটি বেছে নিতে সমস্ত পলিসি তুলনা করতে ভুলবেন না.  

হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের বিষয়ে কিছু প্রায়শই জিজ্ঞাসিত প্রশ্নাবলী

  1. আমি কীভাবে একটি সাশ্রয়ী কভার পেতে পারি?
অসংখ্য ইনস্যুরেন্স পলিসি রয়েছে যেগুলোর মধ্যে থেকে আপনি আপনার জন্য উপযুক্ত পলিসিটি বেছে নিতে পারবেন. কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে পলিসির মূল্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিবেচ্য বিষয় হলেও আপনি কম বয়সে একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানে বিনিয়োগ করার মাধ্যমে আরও বেশি সাশ্রয় করতে পারেন. এছাড়াও, আপনি ডিডাক্টিবেল, কো-পে এবং একই ধরনের অন্যান্য পলিসির শর্তাবলী ব্যবহার করে আপনার ইনস্যুরেন্স প্রিমিয়াম অপটিমাইজ করতে পারেন যার ফলে আপনাকে ক্লেমের সময় নিজের পকেট থেকে পে করতে হবে. এছাড়াও, -এর ব্যবহার হেলথ ইনস্যুরেন্স প্রিমিয়াম ক্যালকুলেটর শুধুমাত্র মূল্যের উপর ভিত্তি করেই নয় বরং পলিসির গুরুত্বপূর্ণ ফিচারের উপর ভিত্তি করেও তুলনা করতে সহায়তা করতে পারে.
  1. আমার পলিসি কি সারা দেশে বৈধ?
হেলথ ইনস্যুরেন্স পলিসির বিষয়ে সাধারণত সবচেয়ে বেশি জিজ্ঞাসিত প্রশ্নগুলির মধ্যে এটি একটি. সাধারণত, হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানগুলি সারা ভারত জুড়ে বৈধ থাকে. যেহেতু দেশের যে কোনও জায়গায় মেডিকেল ইমার্জেন্সি দেখা দিতে পারে, তাই পলিসির ভৌগলিক স্থান সম্পর্কিত সার্বিক সুযোগ সম্পর্কে আপনার জানা প্রয়োজন.
  1. একজন ব্যক্তি কি একাধিক হেলথ কভার নিতে পারবে?
হ্যাঁ, আপনি কতগুলি ইনস্যুরেন্স প্ল্যান কিনবেন তার কোনও সীমাবদ্ধতা নেই. বরং, একটির বেশি হেলথ কভার কেনার পরামর্শ দেওয়া হয় কারণ একটি পলিসি হয়ত কোনও সাধারণ প্ল্যান হতে পারে যা বিভিন্ন রোগকে কভার করবে অপরদিকে অন্য প্ল্যানটি গুরুতর অসুস্থতা বা আগে থেকে বিদ্যমান অসুস্থতা কভার করার জন্য নির্দিষ্ট কোনও প্ল্যান হতে পারে.
  1. হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের অধীনে ক্লেম করার জন্য কি কোনও ওয়েটিং পিরিয়ড আছে?
হ্যাঁ, সমস্ত ইনস্যুরেন্স প্ল্যানই সাধারণত 30-দিনের একটি ওয়েটিং পিরিয়ড ধার্য করে থাকে যেখানে এই ধরনের পিরিয়ড শেষ হওয়ার পরেই কেবল চিকিৎসার খরচ কভার করা হয়. তবে, আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, দুর্ঘটনার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ক্ষেত্রে এই ধরনের ওয়েটিং পিরিয়ড প্রযোজ্য হবে না.
  1. পলিসির মেয়াদের মধ্যে কতবার ক্লেম করা যাবে?
একটি হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের অধীনে করা ক্লেমের সংখ্যার ক্ষেত্রে কোনও সীমাবদ্ধতা নেই. কিন্তু, মনে রাখবেন যে, আপনার হেলথ ইনস্যুরেন্স প্ল্যানের সাম ইনসিওর্ড হল এই সর্বোচ্চ অ্যামাউন্ট যে পর্যন্ত আপনি ইনস্যুরেন্স ক্লেম করতে পারবেন. ইনস্যুরেন্স হল একটি আগ্রহের বিষয়. লাভ, বাদের তালিকা, সীমাবদ্ধতা, নিয়ম এবং শর্তাবলী সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্যের জন্য, অনুগ্রহ করে সেলস সম্পন্ন করার আগে বিক্রয় সম্পর্কিত ব্রোশিওর/পলিসির শব্দাবলী সাবধানে পড়ুন.   উৎস: [1] https://www.niti.gov.in/sites/default/files/2021-10/HealthInsurance-forIndiasMissingMiddle_28-10-2021.pdf [2] https://health.economictimes.indiatimes.com/news/pharma/health-insurance-is-wealth-many-realized-after-2nd-wave/85790116 [3] https://www.irdai.gov.in/ADMINCMS/cms/whatsNew_Layout.aspx?page=PageNo4057&flag=1 [4] https://www.downtoearth.org.in/dte-infographics/india_s_health_crisis/index.html

এই প্রবন্ধটি কি সহায়ক ছিল? একে রেটিং দিন

গড় রেটিং 4.5 / 5 ভোটের সংখ্যা: 2

এখনও পর্যন্ত কোনও ভোট নেই ! প্রথম ব্যক্তি হিসেবে এই পোস্টে রেটিং দিন.

এই প্রবন্ধটি পছন্দ?? আপনার বন্ধুদের সাথে এটি শেয়ার করুন!

আপনার ভাবনা শেয়ার করুন. নীচে একটি কমেন্ট লিখুন!

একটি উত্তর দিন

আপনার ইমেল অ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না. সমস্ত ক্ষেত্র প্রয়োজনীয়